দ্বৈত নাগরিকত্ব সনদপত্র প্রাপ্তির আবেদন

বাংলাদেশ বংশোদ্ভুত বিদেশী নাগরিক, বাংলাদেশী নাগরিকের বিদেশী Spouse ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের জন্য প্রযোজ্য।

বিদেশস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস হতে, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এবং প্রবাসী ব্যক্তির বাংলাদেশে অবস্থানকালে সরাসরি মন্ত্রণালয়ে আবেদন দাখিলের পর নাগরিকত্ব আইন/ বিধি/ পরিপত্র অনুসরণে গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনের ভিত্তিতে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদনের পর সনদপত্র ইস্যু এবং আবেদনকারীকে অবহিত করা হয়। সুরক্ষা সেবা বিভাগ কর্তৃক নির্ধারিত ফরম টি ডাউনলোড করে হাতে পূরণ করে সংযুক্তি আকারে প্রদান করুন। ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন

সেবা সংশ্লিষ্ট তথ্য
প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
সুরক্ষা সেবা বিভাগ কর্তৃক নির্ধারিত ফরমে তথ্য প্রদান।*
সিটিজেনশীপ সনদের ছায়ালিপি*
বিদেশে নাম পরিবর্তনের ক্ষেত্রে নাম পরিবর্তন সংক্রান্ত কাগজপত্র*
বিদেশে জন্ম গ্রহনকারীর জন্ম সনদের ফটোকপি*
বাংলাদেশে থেকে সরাসরি মন্ত্রণালয়ে আবেদনপত্র দাখিল করা হলে আবেদনপত্রের সাথে পাসপোর্টের “Arrival stamp” সম্বলিত পাতার কপি সংযোজন করতে হবে।*
পাসপোর্ট সাইজ রঙিন ১টি ছবি*
উভয় দেশের পাসপোর্টের ছায়ালিপি (১ নম্বর থেকে ৫ নম্বর ব্যবহৃত পাতা)*
আবেদনপত্রে ছেলেমেয়ের নাম উল্লেখ থাকলে তাদের জন্মসনদের ফটোকপি
৫,০০০/- টাকা ট্রেজারি চালানে জমার কপি (কোড নম্বর-১-৭৩০১-০০০১-২৬৮১)*
২০০/-টাকার নন-জুডিসিয়াল স্ট্যম্পে এফিডেভিট*
সেবার মূল্য এবং পরিশোধ পদ্ধতি
(ক) ৫,০০০/- টাকা (বাংলাদেশ ব্যাংক/ সোনালী ব্যাংকের যে কোন শাখায় নম্বর-১-৭৩০১-০০০১-২৬৮১ কোডে ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে জমা (খ) ২০০/- টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে এফিডএভিড
সেবা প্রদানের সময়সীমা
৩০ কার্যদিবস
গোয়েন্দা সংস্থা হতে তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর ৩০ কর্মদিবস।
আবেদন ফরম পূরণের নিয়মাবলী
  • ১। আবেদন ফরমের লাল তারকা চিহ্নিত ঘরগুলো অবশ্যই পূরণ করুন। অন্যান্য ঘরগুলো পূরণ ঐচ্ছিক।
  • ২। আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পূর্বে প্রয়োজন হলে সংরক্ষণ করা যায় এবং পরবর্তীতে সেবা ব্যবস্থাপনা অপশন হতে ড্রাফট আবেদন পুনরায় শুরু করা যাবে।
  • ৩। আবেদন দাখিলের পর প্রতিটি আবেদনের জন্য একটা স্বতন্ত্র ট্রাকিং নম্বর প্রদান করা হবে যেটা ব্যবহার করে সেবা ব্যবস্থাপনা অপশন হতে আবেদনের অগ্রগতি জানা যাবে।